অভিষেকে আইপিএলের এক দশকের রেকর্ড ভাঙলেন জোসেফ

69

মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে মাত্র ১৩৭ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৯৬ রানে গুটিয়ে গেলো সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।  হায়দরাবাদ দলে বেয়ারস্টো-ওয়ার্নারের মতো বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান। স্বল্প রানের পুঁজির সামনে জয় পাওয়ার কাজটা অনেকটাই সহজ বলে মনে হলেও সানরাইজার্সের সব পরিকল্পনায় পানি ঢেলে দিলেন ক্যারিবিয়ান পেসার পেসার আলজারি জোসেফ।

নির্ধারিত ৪ ওভারের কোটা শেষ করার আগে (৩.৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে) ১২ রান খরচ করে ৬ উইকেট তুলে নিয়ে সানরাইজার্স’র একাই ধস নামান জোসেফ। অভিষেক ম্যাচে মুম্বাইয়ের জয়ের নায়ক ২৩ বছরের এই ক্যারিবিয়ান সেনশেসন। তার হাত ধরেই ১৩৬ রানের পুঁজির ভরসায় লড়াইয়ে নেমে আলজারির বিধ্বংসী বোলিংয়ের ভর করেই ৪০ রানে ম্যাচ জিতল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। সানরাইজার্সের ইনিংস গুটিয়ে যায় ৯৬ রানে।  আইপিএলে ব্যাটসম্যানদের রাজত্বের মাঝে এদিন বল হাতে স্বপ্নের অভিষেক হয় আলজারি জোসেফের। আইপিএল অভিষেকেই টুর্নামেন্টের রেকর্ডবুকে নাম তুলে ফেললেন তিনি।  প্রথমবারের জন্য আইপিএলের মেগা মঞ্চে পা রেখেই মাত্র ১২ রান খরচ (একটি মেডেন সহ) করে ৬টি উইকেট তুলে নেন আলজারি। আর এতেই আইপিএলের রেকর্ডবুকে নাম তুললেন নবাগত পেসার৷


এর আগে আইপিএলের সর্বকালীন সেরা স্পেল ছিল পাক ক্রিকেটার সোহেল তনভিরের৷ আইপিএলের প্রথম মরশুম অর্থাৎ ২০০৮ সালে জয়পুরে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচে রাজস্থানের হয়ে ১৪ রানে ৬ উইকেট তুলে নিয়েছিলেন তনভির৷ ১১ বছর আগের সেই রেকর্ডই এদিন ভেঙে দিলেন আলজারি৷ ম্যাচে ১২ রানে খরচ করে ৬ উইকেট পান ডানহাতি পেসার৷ 

নিজের প্রথম ওভারের প্রথম বলেই ওয়ার্নারের উইকেট নেন জোসেফ। অভিষেকে নিজের প্রথম ওভারেই তুলে নেন মেইডেন উইকেট। এরপর একে একে সাজঘরে পাঠান বিজয় শঙ্কর, দীপক হুদা, রশিদ খান, ভুবনেশ্বর কুমার ও সিদ্ধার্থ কাউলকে। উপ্পলে শনিবার রাতে সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে তাঁর স্পেলই এখন আইপিএলের ইতিহাসের সর্বকালীন সেরা বোলিং রেকর্ড৷

একনজরে আইপিএলের সর্বকালীন সেরা বোলিং স্পেল-

১। আলজারি জোসেফ- প্রতিপক্ষ সানরাইজার্স, দল-মুম্বই, ১২/৬, ২০১৯ সাল

২। সোহেল তনভির- প্রতিপক্ষ চেন্নাই সুপার কিংস, দল-রাজস্থান রয়্যালস, ১৪/৬, ২০০৮ সাল

৩। অ্যাডাম জাম্পা- প্রতিপক্ষ সানরাইজার্স, দল রাইজিং পুনে, ১৯/৬, ২০১৬ সাল

৪। অনিল কুম্বলে- প্রতিপক্ষ রাজস্থান রয়্যালস , দল রয়্যাল চ্যালেঞ্চার্স ব্যাঙ্গালোর,৫/৫, ২০০৯ সাল

৫। ইশান্ত শর্মা- প্রতিপক্ষ কোচি , দল-ডেকান চাজার্স, ১২/৫, ২০১১ সাল

৬। লসিথ মালিঙ্গা- প্রতিপক্ষ ডেকান চাজার্স, দল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ১৩/৫, ২০১১ সাল

৭। অঙ্কিত রাজপুত- প্রতিপক্ষ সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, দল কিংস ইলেভেন, ১৪/৫, ২০১৮ সাল


সেই সঙ্গে এদিন আইপিএলে বল হাতে সেরা অভিষেকের রেকর্ডও গড়ে ফেললেন জোসেফ। এক নজরে রেকর্ড-

১। আলজারি জোসেফ- ১২/৬, ২০১৯ সালে

২। অ্যান্ড্রু টাই- ১৭/৫, ২০১৭ সালে

৩। শোয়েব আখতার- ১১/৪, ২০০৮ সালে

সূত্র বাংলাদেশ প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here