নিখোঁজের ৪ দিন পর নদী থেকে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার লাশ উদ্ধার

85

নিখোঁজের ৪ দিন পরে সাভারে ধলেশ্বরী নদী থেকে তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি হুমায়ন কবির সরকারের (৪০) লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস। এ ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে আটক করেছে। নিহত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ভরারী এলাকার গোলাম মোস্তফার ছেলে।

সাভার ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার লিটন আহমেদ বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে ভরারী এলাকার নিজ বাড়ি থেকে পানপাড়া এলাকায় মোবাইল ফোনে ডেকে নেন ওই এলাকার পারভেজ ও তার সহযোগীরা। এরপর তাকে কুপিয়ে হত্যা করে লাশ ধলেশ্বরী নদীতে ফেলে দেয়। পরে আজ সকালে ফায়ার সার্ভিস পানপাড়া এলাকায় ধলেশ্বরী নদীতে তল্লাশী চালিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে। পরে পুলিশ তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে প্রেরণ করে।  মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় সন্ত্রাসীরা তাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে নিহতের স্বজনরা। নিহত হুমায়ন কবিরের স্ত্রী শিল্পী বেগম বলেন, আমার স্বামীকে মোবাইলে কল দিলে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। পরে ১২ জন মিলে আমার স্বামীকে রামদা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে তার লাশ ধলেশ্বরী নদীতে ই্ট বেঁধে নদীতে ফেলে দেয়।

সাভার হেমায়েত পুর পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম নবী বাংলাশে প্রতিদিনকে বলেন, হুমায়ন কবির মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা প্রথমে তার উপর গুলি ছোঁড়ে। এরপর নদীর পারে ধারালো অস্ত্র দিয়ে দিনেদুপুরে শত শত লোকজনের সামনে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে নদীতে লাশ ফেলে গুম করে সন্ত্রাসীরা। 

ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইদুর রহমান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, এই ঘটনার একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। অপরাধী যেই হোক তাকে গ্রেফতার করা হবে। এ ঘটনার পর থেকে ওই সন্ত্রাসী ও তার সহযোগীরা পলাতক রয়েছে বলেও জানান তিনি।

সূত্র বাংলাদেশ প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here