‘রশিদ-নবী আফগানিস্তানের হয়ে নাও খেলতে পারেন, যদি…’

72

দরজায় কড়া নাড়ছে আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপ-২০১৯। আগামী ৩০ মে থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্ব ক্রিকেটের এই মহাযুদ্ধ। কিন্তু মাস দেড়েক আগে অধিনায়ক পরিবর্তন করেছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। তিন সংস্করণে পৃথক অধিনায়ক ঘোষণা করেছে এসিবি, যা ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেট অঙ্গনে।

এরই মধ্যে বোর্ডের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নিজেদের মত প্রকাশ করেছেন দুই তারকা ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবী ও রশিদ খান। আসন্ন বিশ্বকাপে দলের অধিনায়ক হিসেবে আসগর আফগানকেই চান তারা। নবী-রশিদের পক্ষে মত দিয়েছেন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ভনও। পাশাপাশি এসিবিকে তাদের হতাশ করতে বারণ করেছেন তিনি।

আফগানিস্তানের তিন ফরম্যাটেরই অধিনায়ক ছিলেন আসগর। তার অধীনে ঐতিহাসিক প্রথম টেস্ট জিতেছে আফগানরা। ক্রিকেটের বৈশ্বিক আসরে ক্রিকেট পরাশক্তিদের হারিয়েছে। সেই অভিজ্ঞ দলনায়ককেই বিশ্বকাপের আগে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দিয়েছেন নির্বাচকেরা। তিন সংষ্করণের জন্য আলাদা অধিনায়ক বেছে নিয়েছেন তারা। টেস্টে রহমত শাহ, ওয়ানডেতে গুলবাদিন নাইব ও টি-টোয়েন্টিতে রশিদ খানের হাতে অধিনায়কের আর্মব্যান্ড তুলে দিয়েছেন নির্বাচকমণ্ডলী।

বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সফল ইংলিশ অধিনায়ক মাইকেল ভন। বিশ্বকাপের কিছুদিন আগে কিভাবে অধিনায়ক পাল্টানো যায়? ক্রিকবাজ লাইভে এমন প্রশ্ন তোলেন তিনি।

ভন বলেন, আসগরের অধীনে বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছেন আফগানরা। তাকেই অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হলো। আমি মনে করি, এটা একদম পাগলামি। আর নবী-রশিদ আফগানিস্তান ক্রিকেটের শুভেচ্ছাদূত। সারাবিশ্বে তারা আফগান ক্রিকেটকে প্রতিনিধিত্ব করছেন। তাদের রাগাতে যাবেন না। এটাই আমার বার্তা। বোর্ডের ওপর ক্ষীপ্ত হলে তারা হয়তো দেশের হয়ে নাও খেলতে পারেন।

সূত্র বাংলাদেশ প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here